তথ্য কমিশন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৪ এপ্রিল ২০১৭

প্রধান তথ্য কমিশনার

প্রফেসর ড. মোঃ গোলাম রহমান 

জীবন বৃত্তান্ত

অধ্যাপক ড. মো: গোলাম প্রধান তথ্য কমিশনার হিসেবে নিয়োজিত আছেন। ইতোপূর্বে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে অধ্যাপনা করেন। তথ্য কমিশনে যোগদানের পূর্বে অধ্যাপক রহমান বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) এর চেয়ারম্যান ছিলেন। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপ-উপাচার্য হিসেবে (২০১৪-১৫) কর্মরত ছিলেন। তিনি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে একজন খ্যাতিমান গণমাধ্যম গবেষক ও যোগাযোগ বিশেষজ্ঞ। প্রায় চার দশকের শিক্ষকতা জীবনে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারপারসন ও একই বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি পাপুয়া নিউগিনি ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি’র ল্যাঙ্গুয়েজ অ্যান্ড কমিউিনিকেশন স্টাডিজ বিভাগে অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান (২০০৮-২০১০) হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

অধ্যাপক রহমান আমেরিকার ওকলাহোমা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সিনিয়র ফুলব্রাইট স্কলার হিসেবে পোষ্ট ডক্টরাল গবেষণা সম্পন্ন করেন। তিনি ভারতের মহীশুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। উল্লেখ্য এটিই ভারতের কোনো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিষয়ে প্রথম পিএইচডি ডিগ্রি। সরকারি বৃত্তি নিয়ে তিনি মহীশূর বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকতায় এম, এ পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণিতে প্রথম স্থান অধিকার করেন এবং দু’টি স্বর্ণপদক লাভ করেন। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্বনামধন্য জার্নালে তাঁর প্রায় ৭০ টি গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে এবং তাঁর রচনা ও সম্পাদনায় ১৩ টি গ্রন্থ ও ম্যানুয়াল দেশ ও বিদেশ থেকে প্রকাশিত হয়েছে। অধ্যাপনার পাশাপাশি তিনি দেশের জ্ঞানজগত, বুদ্ধিবৃত্তিক ও সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলের উৎকর্ষ সাধনেও অবদান রেখে চলেছেন। বিভিন্ন টিভি চ্যানেলের টকশো ছাড়াও জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সেমিনার, কনফারেন্স ও ডায়ালগে অংশগ্রহণ করে আসছেন। বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের তিনি একজন গৌরবান্বিত মুক্তিযোদ্ধা।

এছাড়া জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা প্রণয়ন কিমিটির চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন। গণমাধ্যম ও উন্নয়ন যোগাযোগে অসামান্য অবদানের জন্য International Association for Mass Communication Research (IAMCR) ১৯৯০ সালে প্রকাশিত Who’s Who in Mass Communication গ্রন্থের কভারে   ড. রহমানের ছবি প্রকাশ করে তাঁকে সম্মানিত করেছে। ২০০১ সালে ইউনিভার্সেল পিস ফেডারেশন ব্যাংকককে অনুষ্ঠিত এক অনুষ্ঠানে ড. রহমানকে শান্তির দূত (Ambassador for Peace) সম্মাননা প্রদান করে। তিনি বাংলাদেশ সেন্সর বোর্ড আপীল কমিটির সদস্য।

অধ্যাপক রহমান শিক্ষা ও পেশাগত প্রয়োজনে ৩০ টিরও বেশি দেশে ভ্রমণ করেছেন। তিনি Asian Media, Information and Communication (AMIC) এর বাংলাদেশ প্রতিনিধি। ড. রহমান United Nations International Drug Control Program এর গণমাধ্যম বিশেষজ্ঞ হিসেবেও কাজ করেছেন। তিনি কমনওয়েলথ অ্যাসোসিয়েশন ফর এডুকেটরস ইন জার্নালিজম অ্যান্ড কমিউনিকেশন (CAEJAC) এর সহ-সভাপতি ছিলেন।

প্রফেসর ড. মোঃ গোলাম রহমান 
 

 


Share with :
Facebook Facebook